LaughaLaughi

You Create, We Nurture

Poetry

বিকেলের সূর্য

তখন শেষ বিকেলের সূর্য গোধূলি রাঙানো আলো পাখিদের নীড়ে আসা দিনের শেষ ভালোবাসা। কখনো রামধনূ ছুঁয়ে যায় দিনান্ত ঢাকে আকাশের সীমান্ত এ ছবি রোজ নিত্য নিত্য। চারদিকে রাতের আবাহন ঘরমুখি জনপদের অবগাহন তখনো রয়ে যায় একা এ মন খোঁজে তার…

ছেড়ে যাওয়ার প্রস্তুতি

ছেড়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নেওয়ার ও একটা কারণ থাকে। কেউ কাউকে একদিনে ছেড়ে আসেনা, আগে থেকেই একটু একটু করে সরে আসতে থাকে নিঃশব্দে। ছেড়ে যাওয়ার প্রস্তুতি করতে থাকে নিজেকে, প্রস্তুতি নিতে নিতে নিজেকে জুড়তে শিখে যায়। কঠিন হয়ে যায়, বাস্তবের মুখোমুখি…

কথোপকথন

– কিরে? এতকাল বাদে আমার সাথে কথোপকথন করতে ইচ্ছে হলো!  এতদিন তো ঘুরেও তাকাসনি! – মনে তোকে সবসময় পড়তো রে! কিন্তু কি করবো বল, এত কাজের চাপ যে… – রাখ তোর কাজ! ছোট্টবেলা থেকে তোর সাথে আছি। আগে তো আমাকে…

জীবনে শূন্যতায় কি পূর্ণতা?

জীবনে শূন্যতায় কি পূর্ণতা রূপে আমাদের কাছে ফিরে আসে? আসলে কিছু সংযোগ আমাদের জীবনে কখনো বিড়ম্বনা বা পূর্ণতায় পৌঁছে দেয়। জীবনে উদ্দেশ্য নিয়ে পরিচিত হওয়া মানুষগুলো কখন যে ভালো থাকার কারণ হয়ে ওঠে?―আমাদের বোঝার আগেই। জীবনে কিছু কিছু মানুষের সঙ্গে…

আপোষ! নাকি মনের দুর্বলতা?

“আপোষ করে তো ভিতু মানুষ, আপোষ করে তো মেরুদন্ড হীন প্রাণী।” হ্যাঁ, খানিকটা এই ধরনের কথাই বলে গেছেন বাংলা চলচ্চিত্রের একজন কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ূন ফরীদি। কিন্তু কথাটা কী আদৌ ঠিক! আপোষ করা, বা মানিয়ে চলাটা কী আদৌ লজ্জার? আদৌ কী…

নিজের ছেলে

স্ত্রী বিয়োগের পর একাই থাকেন নিশিকান্ত বাবু, ছেলে আছে তবে সে বাইরে থাকে, আগে ঘনঘন আসতো কিন্তু এখন আর সময় হয় না, ফোন করে বাবাকে মাঝে মধ্যে খোঁজ নেই এই ব্যাস… বয়স ওনার বেশ হয়েছে, ধুঁকে ধুঁকে চলেন কাজ-কামের জন্য…

দ্বিপ্রহর

আগের কোন জন্মের ঘুম ঘুলঘুলির পাতলা রোদে ভাঙার নয়, তাই দ্বিপ্রহরের হিমশীতল পাখিরা হয়তো আতরের গন্ধমাখা ডানা ঝেড়ে বারবার গলা সেধে ফিরে গেছে; সেদিন শেষমেশ আমি জাগতে চাইনি অকালের বেকার খোলস ছড়ানো চৌমাথার ভিড়ে ঠাসা লোকালয়ে, সেখানে একটাও জীব জানে…

সবাই আপন নয়

ধাক্কাগুলো যখন প্রবলভাবে আঘাত হানে, চারিপাশটা তখন একে অপরের থেকে বিচ্ছিন্ন, নিঝুম,নিস্তব্ধ সবাই দেখেও না দেখার ভান করে, অবহেলা করে মুখ ফিরিয়ে নেয় অনায়াসেই। কাছের মানুষগুলো যারা ‘পাশে আছি’ বলে, তাদের অস্তিত্বটাও তখন আর অনুভব করা যায় না, বরং একা…

মিলন তিথি

আমার আর রুহির পরিচয় কলেজ থেকে। প্রথম দেখাতেই আমার তাকে ভালোলেগে ছিল। দিন দিন আমার সাথে বন্ধুত্ব টা ও বেশ ভালো হয়ে ছিল। খুব সুন্দর গিটার বাজাতে পারতো সে,কলেজের অনেক প্রোগ্রামে সে গিটার বাজাতো আর আমি গান গাইতাম। ক্লাস শেষে…

শেষবয়সী

শেষবয়সী একটা, লাইলনের দড়ি আনলাম বারো হাতের বেশি বড়ো না, অনেক দিন পর নিজের জন্য কিছু কেনা। মনে পড়ে, প্রথম যখন তোমার জন্য এই অল্প মাইনে পাওয়া কেরানী, এনেছিল একটা রুপোর সিঁদুর কৌটো। তোমার মুখের সেই হাসিটা দেখে যে সুখটা…