সেদিন দুজনে

রোহিনী আর তুষার দুজনের মধ্যে তুষার বয়সে ছোট। সমাজের চোখে হয়তো ওদের বন্ধুত্ব বেমানান… তবে আশেপাশে থাকা মানুষদের জন্য ওরা কি নিজেদের ইচ্ছেকে গুরুত্ব দেবেনা? জানতে চোখ রাখুন…

– আমার সাথে ডেট করে কী মনে হচ্ছে? রুড? ঠোঁটকাটা?
– নাহঃ, স্পষ্টবাদী। মানুষের যেমন হওয়া উচিত তুমি সেরকম।
(তুষারের কথা শুনে রোহিনীর ঠোঁটে হাসি খেলে যায়। )
– আমি তোমাকে বিয়ে করতে চাই রোহিনী।
– ভেবে বলছো? তুমি বয়সে আমার থেকে চারবছরের ছোট… তোমার ফ্যামিলি একসেপ্ট করবে?
– হুম, একসেপ্ট না করলে আমরা আলাদা থাকবো।
– সমালোচনা হবে চারদিকে, একসময় অনেক বিপ্লব করেছি, এখন আর ভালো লাগেনা।
– হয়তো হবে সেসব কিন্তু আমি পিছু হটবোনা। আমার অনেক বন্ধু আছে যাদের স্কুল কিংবা কলেজলাইফে তাদের থেকে বয়সে বড় কোনো মেয়েকে পছন্দ ছিল। কিন্তু, ব্যাপারটা খারাপ হবে ভেবে তারা আর এগুতে পারেনি। ইভেন আমি অনেক বন্ধুকে বলতে শুনেছি সেম এজ রিলেশনশিপের কথা ভাবতেই পারিনা, আমি এস্টাব্লিশ হতে হতে তার বাচ্চা আমায় মামা ডাকবে তো! তারাই সবার আগে পিএনপিসি করবে। (তুষার কথাগুলো বলে একটু থামে। )
– হুম, ঠিকই বলেছো, আমি এখন ৩২, কেউ কেউ ধরেই নিয়েছে আমি আর বিয়ে, সংসার করবোনা। এই মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরি করি, ফিরতে রাত হয় সেইসব নিয়েও ফিসফাস হয়।
– তুমি অবাক হবে কিনা জানিনা রোহিনী পুরুষরাও রীতিমতো পিএনপিসি করে। ওটা কেবলমাত্র নারীরা করে এমন নয়!
– ব্যাপারটা হলো আজকের প্রজন্ম যতটা আধুনিক, প্রগতিশীল বলে নিজেদের দেখায় আদৌ মানসিকভাবে তারা ততটা নয়। আজকের প্রজন্মের ভিতরেও অন্যের ব্যাপারে নাক গলানোর অভ্যাস রয়েছে, তারাও আড়ালে গিয়ে অন্যদের ব্যাপারে মন্তব্য করতে পিছপা হয়না। (রোহিনী এবার ধীরেসুস্থে স্যান্ডউইচে কামড় বসায়। )
– জীবনটা আমাদের। তাই অন্যরা কি ভাবলো, অন্যরা কি বলবে এগুলোর থেকে আমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ আমি কি ভাবছি আর তুমি কি চাইছো…
– হুম, রাইট!
– রোহিনী, তুমি রাজি তো?
– তোমার সঙ্গে আলাপের প্রথমদিন বুঝিনি, আজ বুঝতে পারছি তোমাকে দেখে আমার সেদিন কিরকম একটা মনে হয়েছিলো…
– কী মনে হয়েছিল?
– সেইসময় আমি একটা উপন্যাস পড়ছিলাম, তোমাকে প্রথমবার সামনাসামনি দেখে আমার সেই উপন্যাসের নায়কের কথা মনে পড়েছিলো! কেন পড়েছিল সত্যিই জানিনা…
– আর তো তাহলে দেরী করা যায়না! এবার অফিসফেরত আড্ডাগুলো ক্যাফেতে বসে করতে হবেনা, বাড়ির ব্যালকনিতে বসে দুকাপ কফি নিয়েই করা যাবে। (দুজনের মুখেই হাসি ফুটে ওঠে। )

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *