fbpx
Interviews

তন্ময় মজুমদারের সাথে ঘুরে দাঁড়ানোর গল্পকথা

তন্ময় মজুমদারের সাথে আড্ডায়।

  • কেমন আছেন স্যার ?
    তন্ময় – কয়েকদিন আগে শুটিং শেষ করলাম নতুন সিনেমার, কিন্তু শুটিং-এ আমার এক্সিডেন্ট হয়েছিল, এখন ভালো আছি।

 

  • অ্যানিমেশন এর স্টুডেন্ট হয়ে হঠাৎ করে অভিনয়ের জগতে আসার ইচ্ছাটা ঠিক কবে অনুভব করলেন ?
    তন্ময় – আসলে আমার ছোটো থেকেই অভিনয়ের ইচ্ছে টা ছিল,আমি যখন মুর্শিদাবাদ এর খুব ছোট একটা জায়গা কাশিমবাজার থেকে কলকাতায় পড়াশোনা করার জন্য এলাম তখন থেকেই ইচ্ছে টা আরো বাড়তে থাকল, কারণ আমি কলেজের একটা শর্ট ফিল্মে অভিনয় করি ,সেখানে সবাই আমাকে আমার অভিনয় নিয়ে প্রশংসা করতে থাকে, সেই সময় থেকেই আমার মনে হলো অভিনয় নিয়ে আমার এগোনো উচিত। 😊

 

  •  গ্রুপ থিয়েটারও করছেন আবার বড় পর্দাতেও কাজ করছেন, তবে কোনটা আপনাকে বেশী টানে? মঞ্চ নাকি পর্দা?
    তন্ময় – দেখো আমি বিশ্বাস করি অভিনয় ছাড়াও মঞ্চ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে! তাই বড় পর্দা তে কাজ করছি ঠিক কিন্তু মঞ্চ কোনোদিনও ভুলে যেতে পারবো না কারণ এই মঞ্চ আমাকে অনেক ডিসিপ্লিন শিখিয়েছে , ভালো মানুষ হয়ে উঠতে শিখিয়েছে ।

 

  •  প্রথম ব্রেক কীভাবে পেলেন?
    তন্ময় – আমার প্রথম ব্রেক আসে ডিরেক্টর অরিন্দম শীল এর হাত ধরে “ধনঞ্জয়” ছবি তে, হঠাৎ একদিন আমার কাছে অডিশন এর ফোন আসে এক প্রোডাকশন হাউস থেকে, অডিশন দেওয়ার পরও আমি জানতাম না যে ওটা অরিন্দম শীল-এর প্রোডাকশন হাউস, তারপর এক সপ্তাহ পরে আমি জানতে পারি যে আমি সিলেক্টেড ওই ছবির জন্য, তখন আমি কেঁদে ফেলেছিলাম কারণ এত স্ট্রাগল এর পরে এটা আমার প্রথম ব্রেক বলে।

 

  • বেশ কিছু স্বনামধন্য পরিচালকের সাথে কাজ করেছেন, তাদের মধ্যে কাজের সময় সবথেকে স্বাচ্ছন্দ্য কার সাথে করেছেন?
    তন্ময় -অবশ্যই অরিন্দম শীল, কারণ ওনার ডিরেক্টরিয়াল টিম ব্যাক্তিগত ভাবে আমার খুব প্রফেশনাল মনে হয়েছে ।

 

  •  বাড়ির লোক অথবা আত্বীয়স্বজনের থেকে ঠিক কতটা সাপোর্ট পেয়েছিলেন যখন সিদ্বান্ত নিয়েছিলেন অভিনয়ের জগতে আসবেন?
    তন্ময় – দেখো আমি জয়েন্ট ফ্যামিলির ছেলে, আমার বাড়িতে সবাই আমাকে খুব সাপোর্ট করে, এমন কি আমার ঠাকুমাও।

 

  •  এমন কোনো মানুষ যে আপনাকে বড্ড মোটিভেট করেন?
    তন্ময় – হ্যাঁ অবশ্যই আমার মা এবং আমার মামার ছেলে অয়ন।

 

  •  পাশে ভালোবাসার মানুষ থাকলে, তার সাথে ড্রিম ডেট কোথায় কাটাতে চাইবেন?
    তন্ময় – আপাতত কেউ নেই তবে যদি কখনো সত্যি ভালোবাসার মানুষ খুঁজে পাই তাহলে পাহাড়ে কোনো নির্জন জায়গায়, কারণ পাহাড় আমার সব থেকে প্রিয় জায়গা ।

 

  •  পছন্দের খাবারের তালিকায় প্রথম তিনটে নাম?
    তন্ময় – গরম ভাতে ঘি দিয়ে সাথে আলুসেদ্ধ ।
    চিকেন স্যালাড ।
    চিংড়ি মালাইকারি ।

 

  • পছন্দের অভিনেতা এসং অভিনেত্রী?
    তন্ময় – রাজ কুমার রাও
    আলিয়া ভাট

 

  •  আপনার আপকামিং প্রজেক্টের ব্যাপারে কিছু বলতে চান?
    তন্ময় – অনেক স্ট্রাগল-এর পরে আমি খুব বড় একটা প্রজেক্ট-এ ব্রেক পেয়েছি,ছবির শুটিং ও শেষ, কিন্তু এর থেকে বেশি আমি এখন বলতে পারছি না। বাকিটা কিছুমাস পরেই দেখতে পাবেন আপনারা ।

 

  •  আপনার ফ্যানের জন্য কিছু মেসেজ দিতে চান?
    তন্ময় – দেখো সত্যি কথা বলতে সেইরকম সেলেব্রিটি আমি এখনো হয়নি যে আমার ফ্যান থাকবে, তবে আমার কাজ যাদের ভালো লাগে তাদের সকলকে বলবো আপনারা আশীর্বাদ করুন আমি যেন অনেক ভালো একজন মানুষ হয়ে উঠতে পারি কারণ ভালো মানুষ নাহলে ভালো অভিনেতা হওয়া যায় না। এটাই আমি বিশ্বাস করি।

 

  •  সবশেষে অবশ্যই আমাদের LaughaLaughi’র জন্যে কিছু মেসেজ?
    তন্ময় – দেখো “LaughaLaughi” আমার খুবই প্রিয় কারণ তোমাদের কাজ আমার খুব ভালোলাগে।আমি এটাই বলবো যে আপনারা এইভাবে পাশে থাকুন সবসময় যাতে আমার মতো আরো নতুন অনেকে যারা আছেন তাদের স্ট্রাগল-এর কথা আপনাদের সাথে শেয়ার করার সুযোগ থাকে।

 

Show More

Tiyasa Sen

মুখচোরা এবং অগোছালো গোছের পাবলিক। বইয়ের নেশা আছে, কলম চালাই আলগোছে আর ক্যানভাসে রং ছিটিয়ে ভালবাসা আঁকি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker