Story Series

কথা দেওয়া থাক (পর্ব-৮)

কথা দেওয়া থাক (পর্ব-৮)

আগের পর্বে…
(…মেঘ― কাল অভ্র তোকে ফোন করেছিল, না? আর ওর সঙ্গেই তুই…

তিন্নি― ইয়েস, হি ডিড!আর যদি যাইও বা, তাতে তুই এভাবে রিয়াক্ট কেন করছিস!

মেঘ― একটা কল সব এত সহজে ধুয়ে দিয়ে গেল কিভাবে তিন্নি! সেই সমস্ত অন্ধকারের দিনগুলোর মুল্য শুধু এইটাই? এটা তুই তিন্নি?! সে, যার কাছে আত্মসম্মানের চেয়ে মুল্যবান কোনো সম্পর্ক ছিল না? চিনতে পারছি না আমি!!

তিন্নি― কম্প্লিকেটেড করিস না প্লিজ্ এভাবে।

মেঘ― হুম, হ্যাভ আ নাইস্ ট্রিপ। রাখছি৷

অভ্র― হোয়াটস্ আপ ডিয়ার? কতক্ষণ ধরে ট্রাই করে যাচ্ছি ইট ওয়াজ এনগেজ্ড!

তিন্নি― এইত্তো, বলো….

অভ্র― আর ইউ অলরাইট? গলাটা এরকম কেন লাগছে কেন?

তিন্নি― না,নাথিং মাচ! ডিনার কম্প্লিট?

অভ্র― উফ্,সেই তোমার এক বস্তাপচা প্রশ্ন! ডু আই সিম টু বি আ কিড? যে না খেয়ে বসে থাকবো! আর যাই হোক আই আ্যম নট আ্যন ইমোশানাল ফুল লাইক ইউ!

তিন্নি― অভিমান, চিন্তা, ভালোলাগাদের বোকামির আখ্যা পেতে হয় শেষমেষ?

অভ্র― আবার সেইসব ফিলোসফিকাল লেকচার স্টার্ট করো না প্লিজ্! কাম অন, এতদিন পর আমরা আবার একসাথে বেরোবো,কোয়ালিটি টাইম স্পেন্ড করবো!
অন্তত এখন এসব ছোটোখাটো ব্যপারে মুড স্পয়েল করো না!

তিন্নি― হুম, ভুলটা আমারই! আমি ভুলে গেছিলাম এইসব “ফিলোসফিকাল লেকচার” আমি এমন একজনের জন্য খরচ করছি, যার কাছে একটা স্টেডি রিলাশনে থাকাকালীন একটা গোটা রাত মন্দারমণি অন্য একজনের সাথে কাটানোটাও একটা “ছোটোখাটো” ব্যপার, নিজেকে কতটা ছোটো করেছি নিজের কাছে, ভাবতেই গা গোলাচ্ছে!
যাই হোক,প্ল্যানটা ক্যানসেল করলাম,রাখছি)

 

তিন্নি― মেঘ আছিস?

মেঘ― পড়াতে এসেছি, তুই জানিস আমার কবে কবে পড়ানোর ডেট থাকে…
ওহো হ্যাঁ, এখন এসব মনে না থাকারই কথা। যাই হোক, এত কথার দরকার ছিল না যদিও। বল কি বলার, মেক-আউট করতে যাবি এক্সের সাথে, বাড়িতে ম্যানেজ করতে হবে তো! আইরনি!

তিন্নি― বলা শেষ? বাকি আছে আর কিছু? না না, উগরে দে সবটা, যা আছে মনে…
বলে দে না, বল!

মেঘ― মানে…?

তিন্নি― তোর মাথা আর ভাদ্র মাসে বরফ! কথা বলতে ইচ্ছে করছে না জাস্ট. আমি রেডি হয়ে বসে থাকবে, উইদিন থার্টি মিনিটস্ পিক আপ করবি আমায়!

মেঘ― মানে! তুই তো অভ্রর সাথে…
কি হল হঠাৎ!

তিন্নি― জানি না, যেটা বলছি চুপচাপ কর। মাথা গরম করাস না মেঘ! আর ইয়ে, আমার খিদে পেয়েছে, আসার সময় দুটো আইসক্রিম নিয়ে আসবি!

মেঘ― আমি এইসময় ওসব খাই না, তুই জানিস না?

তিন্নি― তোর জন্য কে ভাবছে রে, দুটোই আমার!
তাড়াতাড়ি আয়!

মেঘ― জ্বালাস কেন এত? উফ্!
আসছি।

চলবে…

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker