fbpx

বাংলা ছবি রমরমিয়ে চললো এবার পুজোয়

এবার পুজোয় পুরোপুরি অন‍্য ধরণের বাংলা ছবি নিয়ে এসেছেন টলিউডের তাবড় তাবড় পরিচালকেরা। এ বছর পুজোয় মুক্তি পেয়েছে চার চারটে বাংলা ছবি।

প্রতিটি ছবির মূল চরিত্রে রয়েছেন নামজাদা অভিনেতা অভিনেত্রীরা।

এই চারটে বাংলা ছবি প্রতিটিই প্রতিটি থেকে ভিন্ন ধরণের। ২ রা অক্টোবর মুক্তি পেয়েছে ‘পাসওয়ার্ড’, ‘গুমনামী’, ‘সত‍্যান্বেষী ব‍্যোমকেশ’ ও ‘মিতিন মাসি’।

পাসওয়ার্ড একটি পুরোপুরি নতুন ধরণের বাংলা ছবি। ছবিটি কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এবং এতে দেব, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, পাওলি দাম এবং রুক্মিণী মৈত্র অভিনয় করছেন।   পাসওয়ার্ডের অন্য জনপ্রিয় অভিনেতা হলেন আদ্রিত রায়।

এই ছবির ট্রেলারে দেখা যায় একটি মহিলাকে ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে এবং তিনি নিজের বাড়িতেও নিরাপদ নন। এই ছবি মূলত সাইবার ক্রাইম ও ডার্ক ওয়েব নিয়ে। এই ছবিতে নেগেটিভ রোল প্লে করছেন পরমব্রত। রুক্মিনী মৈত্র এবং আদ্রিত রায়ও ডার্ক ওয়েব বিশেষজ্ঞদের সাথে দেখা গেছে ট্রেলারে তবে তাঁদের চরিত্র পজিটিভ না নেগেটিভ তা এখনো সাসপেন্স। সাইবার ক্রাইম নিয়ে বাংলা ছবি এই প্রথমবার। পূজোর চারদিনের কোনো একদিন সিনেমার তালিকাই রাখতেই পারেন ‘পাসওয়ার্ড’।

এই পূজোয় চমক নিয়ে এসেছেন শ্রীজিত মুখোপাধ্যায়।
‘গুমনামি’ একটি বাংলা রহস্য ছবি যা শ্রীজিত মুখোপাধ্যায় রচিত ও পরিচালিত এবং শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের ব্যানারে শ্রীকান্ত মোহতা এবং মহেন্দ্র সোনি প্রযোজিত। অভিনেতা প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী দেখা যাবে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস ও গুমনামি বাবার ভূমিকায়।

ছবিটি মুখার্জি কমিশন হিয়ারিংয়ের উপর ভিত্তি করে নির্মিত।  ছবিতে সুভাষ চন্দ্র বোসের মৃত্যু বা নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করা তিনটি তত্ত্ব দেখানো হয়েছে।

ছবিতে নেতাজির মৃত্যুর সাথে সম্পর্কিত তিনটি জনপ্রিয় তত্ত্ব প্রদর্শিত হবে।  এই তিনটি তত্ত্বটি হ’ল, ‘তাইওয়ানে বিমান দুর্ঘটনায় তিনি মারা গিয়েছিলেন’, ‘তিনি রাশিয়ায় মারা গিয়েছিলেন’ এবং অন্য তত্ত্বটি হ’ল ‘তিনি গুমনামি বাবা হিসাবে গোপনীয় জীবনযাপন করার সময় বড় বয়সে মারা গিয়েছিলেন’।

প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জিকে ‘গুমনামি’ ছবিতে শীর্ষক চরিত্রে দেখা যাবে।  নেতাজি এবং গুমনামি বাবার চেহারা নিখুঁত করতে তাঁকে তিন থেকে চার ঘন্টা সময় দিতে হয়েছিল কৃত্রিম মেকআপের জন‍্য। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, “আমার পক্ষে নেতাজি হয়ে ওঠা আরও চ্যালেঞ্জিং ছিল”।

প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জির পর অনির্বাণ এই ছবিতে দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন।  তাঁকে সাংবাদিক চন্দ্রচুর ধর হিসাবে দেখা যাবে যা শ্রীজিত মুখোপাধ্যায়ের ছবিতে একটি কল্পিত নতুন চরিত্র। এছাড়াও এই ছবিতে অনির্বাণের স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন তনুশ্রী। নেতাজীর ওপর তৈরি ছবি বাঙালিকে টানবেই।

পরমব্রত অভিনীত ‘সত্যনেশী ব্যোমকেশ’ ও মুক্তি পেয়েছে ২ রা অক্টোবর।  শ্রোতাদের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ানোর জন্য নির্মাতারা দুটি ট্রেলার প্রকাশ করেছেন।  প্রতিবছর ব্যোমকেশ সিনেমা মুক্তি পেয়েছে এবং এ বছরও ধারাবাহিকতা বজায় রাখা হয়েছে।

ব্যোমকেশ বক্সী এই থ্রিলারে  হিনা মল্লিক হত্যার রহস‍্য উদঘাটন করবেন‌।
সায়ন্তন ঘোষাল ব্যোমকেশ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন।  তিনি এর আগে হইচই এর ব্যোমকেশ ওয়েব-সিরিজ পরিচালনা করেছেন এবং এর জন‍্য তিনি অনেক প্রশংসা পেয়েছিলেন। সায়ন্তন ঘোষালের পরিচালনার ওপর চোখ বুজে ভরসা করা যায়।

পরমব্রত চ্যাটার্জি এবং রুদ্রনীল ঘোষের পাশাপাশি এই ছবিতে গার্গী রায় চৌধুরী, অঞ্জন দত্ত, সুব্রত বোস-এর মতো অভিনেতারা অভিনয় করেছেন। ব‍্যোমকেশ বা ফেলুদা বরাবর টেনেছে বাঙালিকে, পূজোর মরসুমে তার ব‍্যতিক্রম হয় কি করে!

এবারের পূজো মুক্তি পাওয়া ছবির তালিকায় আরও একটি নাম অন্তর্ভুক্ত হয়েছে‌। অরিন্দম শীল এবার পূজোয় নিয়ে এসেছেন বাংলার প্রথম মহিলা গোয়েন্দা থ্রিলার ‘মিতিন মাসি’। এই ছবিতে মূল চরিত্রে রয়েছেন কোয়েল মল্লিক।

অরিন্দম শিল গোটা গোয়েন্দা থ্রিলার তৈরি করেছেন সুচিত্রা ভট্টাচার্যের লেখা  ‘হাতে মাত্র তিনটে দিন’ গল্প অবলম্বনে এবং এটি মিতিন মাসি সিরিজের প্রথম ছবি হবে। এরপরও পরিচালক এই সিরিজের  দুটি ছবি তৈরি করবেন।

ফিল্মটি পৌরাণিক কাহিনীটি ভঙ্গ করে যে মহিলারা কোনও গোয়েন্দা হতে পারে না কারণ তারা বাড়ির কাজগুলি আরও ভালভাবে পরিচালনা করে। তবে এই ছবিতে কোয়েল মল্লিককে কোনও সমস্যা ছাড়াই বাড়ি এবং তার কাজের ভারসাম্য বজায় রাখতে দেখা যাবে। এই ছবি পুরোপুরি নতুন ধরণের।

তবে এবার পুজোয় টলিউড ছবির ভান্ডার নিয়ে হাজির হলেও থিয়েটার স্ক্রিন পেতে যথেষ্ট পরিশ্রম করতে হয়েছে পরিচালক সহ অভিনেতা অভিনেত্রীদের। ২ অক্টোবর এই চারটে বাংলা ছবির সঙ্গে মুক্তি পেয়েছিল হৃত্বিক রোশন অভিনীত ‘ওয়ার’। তবে পূজোয় রমরমিয়ে চলেছে চারটে ছবিই। যারা এখনো দেখেননি দেখে আসতেই পারেন।

Leave a Reply