fbpx
Special Story

ইউটিউব খ‍্যাত গ্র‍্যান্ডপা কিচেনের গ্র‍্যান্ডপা চলে গেলেন চিরঘুমে!

চলে গেলেন ইউটিউব বিখ‍্যাত গ্র‍্যান্ডপা কিচেনের গ্র‍্যান্ডপা নারায়ন রেড্ডি। সঙ্গে হয়তো হারিয়ে গেল কয়েকশো ক্ষুধার্ত শিশুর দুবেলা পেট ভরার স্বপ্ন!

টেকনোলজির যুগে রমরমিয়ে চলছে ইউটিউব। ইউটিবের কারণে বিখ‍্যাত হয়েছেন অনেক সিঙ্গার, ডান্সার, কমেডিয়ান থেকে শুরু করে বাইকার, টেকনিশিয়ান। এমনই একজন ইউটিউব সেনশেসান ছিলেন নারায়ন রেড্ডি। তাঁর ইউটিউব চ‍্যানেলের নাম  ‘গ্র‍্যান্ডপা কিচেন’।

আপনি যদি রান্না পছন্দ করেন বা প্রচুর রান্নার ভিডিও দেখেন, আপনি সম্ভবত ৬ মিলিয়নেরও বেশি গ্রাহক সহ একটি চ্যানেল ‘গ্র‍্যান্ডপা কিচেন’ এ কথা শুনেই থাকবেন।  অবশ্যই দাদার রান্নার দক্ষতা এবং সরলতা তাঁকে ভারত এবং বিদেশ থেকে প্রচুর অনুসারী পেয়েছিল।  দুর্ভাগ্যক্রমে  নারায়ণ রেড্ডি ২৭ শে অক্টোবর রোববার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৩।

তেলঙ্গানার ইন্টারনেটের প্রিয় শেফ  তাঁর বাড়ির উঠোনের অনাথ বাচ্চাদের জন্য সহজ অথচ সুস্বাদু খাবার রান্নার জন্য বিখ্যাত।

বুধবার তার চ্যানেলে আপলোড করা একটি ভিডিওর মাধ্যমে সংবাদটি তাঁর গ্রাহকদের সাথে শেয়ার করা হয়েছিল।

তাঁর অসাধারণ রান্নার দক্ষতার জন্য পরিচিত, রেড্ডি সর্বদা বড় পরিমাণে রান্না করেন এবং তার ভাল কাজের জন্য তিনি অত্যন্ত  জনপ্রিয় ছিলেন।  ম‍্যাগির ৫০০ টি প্যাকেট রান্না করা থেকে শুরু করে কেএফসি স্টাইলযুক্ত মুরগি কীভাবে তৈরি করা যায় তা তিনি তাঁর ফলোয়ার্সদের শেখাতেন ভিডিওর মাধ‍্যমে।

ওরেও পুডিং, গুলাব জামুন ইত্যাদির মতো জিভে জল আনার মতো মিষ্টি খাবারের জন্যও তিনি পরিচিত। তাঁর অসাধারণ রান্নার দক্ষতার কারণেই তিনি ইউটিউব এ বিশ্বজুড়ে বিখ্যাত।  তাঁর সমস্ত খাবার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের কাছে যেত।

ইউটিউব শেফ রেড্ডি দাদুর খাবার রান্না করতেন মানুষের বিনোদনের জন‍্য এবং তাঁর উপার্জনটি দাতব্য সংস্থাগুলিতে দান করা হত।  তাঁদের লক্ষ্য অনাথদের খাবার, পোশাক, স্কুল সরবরাহ এবং জন্মদিনের উপহারের মতো প্রাথমিক প্রয়োজনীয়তা সরবরাহ করা।

দাদু ২০ শে সেপ্টেম্বর খিঁচুড়ি আলুর দম, তার শেষ খাবার রান্না করেছিলেন। তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতির কারণে তিনি তখন থেকেই রান্নার দায়িত্ব থেকে দূরে ছিলেন।

দুঃখের সাথে দাদু মারা যাওয়ায় এক বিশাল শূন্যতা চলে গেছে যা পূরণ করা অত্যন্ত কঠিন।  যদিও তাঁর ইউটিউব চ্যানেলটি রয়ে গেছে। তবে আমরা নারায়ণ রেড্ডির মতো কাউকে দেখতে পাবনা, যিনি তাঁর কাজের প্রতি এতটাই অনুরাগী ছিলেন। তাঁর মৃত্যুর জন‍্য হয়তো অন্ধকারে চলে যাবে অনেক অনাথ শিশু!

তাদের জন‍্য আবারও–
“ক্ষুধার রাজ‍্যে পৃথিবী গদ‍্যময়,
পূর্ণিমার চাঁদ যেন ঝলসানো রুটি”
ইউটিউব শেফ নারায়ণ রেড্ডি শুধু একজন ইউটিউবার ছিলেন না, তিনি একজন দরদী মনের মানুষ ছিলেন।

 

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker