fbpx

ব‍্যাকরণ, সমাস এবং প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়

(১)
আমার ভুল ব‍্যাকরণ প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়।
মনুষ্যত্বের ভুল সমাসে আমার আজো ভয় হয়!

আমার ঘরভাঙা সংসার, তোমার ঘরে ফেরার গান।
আমার গল্প বিভেদ স্মৃতি, তোমার হাসিমুখ অম্লান।

আমার হেঁটে ফেরা পথ, ফুসফুসের টান।
তোমার ছবিতে আঁকা প্রেম, বান ভাসা ত্রাণ।

আমার ফাঁকা রেললাইন, জীবিকার আকাল।
তোমার ঠান্ডাঘরের শখ, উগরে দেওয়া সকাল।

আমার ফিরতিরাতের বাদাম, অল্প আধটু প্রেম।
তোমার নিঙড়ে নেওয়া আবেগ, চলতে থাকা গেম।

আমার স্বভাব বেজায় খারাপ, দমকা হাওয়ার মতো।
তোমার শান্ত বিদ্রোহ, অমানুষিক আঁচড় আর ক্ষত।

(২)
আমার ভুল ব‍্যাকরণ প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়।
মনুষ্যত্বের ভুল সমাসে আমার আজো ভয় হয়!

আমার বিলিয়ে দেওয়ার পালা, পারলে তুমি জেতো।
তোমায আগলে রাখাই নীতি, উত্তরে হাত পেতো!

আমার খসেপড়া পলেস্তারা, দীনের ভালোবাসার বাড়ি।
তোমার রাজনৈতিক চমক, নিমেষেই দাও আড়ি।

আমার যা কিছু ব‍্যক্তিগত, সরকারি খাতে জমা।
তোমার সবটাই ফাঁকি, জনতা করেছে ক্ষমা।

আমার হেরে যাওয়ার গল্প, দমফাটা হাসির খোরাক বৈকি
তোমার ফেলে আসা অতীত, কঠোর হলেও সত্যি নয়কি!

আমার গন্ধে ঢাকা গোলাপ, বীর যোদ্ধার মৃত‍্যু।
তোমার কাগজে লেখা গান, স্বপ্ন দেখা শত্রু।

(৩)
আমার ভুল ব‍্যাকরণ প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়।
মনুষ্যত্বের ভুল সমাসে আমার আজো ভয় হয়!

আমার নিয়তিতে বিচ্ছেদ, আগুনে রাখা হাত।
তোমার শাস্ত্রে শেখা নিয়মে খালি পেটের পাত!

আমার অসুখে মলম বই, শ্রমিকের প্রাণ ভিক্ষা।
তোমার থমকে থাকা কলম, সামাজিক শিক্ষা!

আমার জীবদ্দশার মোমবাতি, আলোছায়া ঘরদোর।
তোমার আঁধার স্মৃতির স্তম্ভ পেরিয়ে দম্ভ দেখানো ভোর।

আমার গান গল্প সস্তা, বিকিয়ে দেওয়া মনুষ্যত্ব।
তোমার শিল্পীসুলভ মন, আজীবন অমরত্ব।

আমার মূল‍্যহীন আবেগ, জীবন রাখা বাজি।
তোমার পুষে রাখা অভিমান, মৃত্যু গররাজি।

(৪)
আমার ভুল ব‍্যাকরণ প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়।
মনুষ্যত্বের ভুল সমাসে আমার আজো ভয় হয়!

আমার কবিতা ভর্তি খাতা, হিজিবিজি সব শব্দ।
তোমার দশমিকে হাঁটা পথ, হাতের মুঠোয় জব্দ।

আমার রেললাইনের নকশা, আত্মঘাতী শ্রম।
তোমার অন্ধকারের চোখ, বেসরকারি ভ্রম!

আমার অসামাজিক রং, স্বল্প অধিকারের তেষ্টা।
তোমার ভয়ার্ত দুচোখ, আন্দোলনের বৃথা চেষ্টা।

আমার নিয়মভাঙা আইন, মাসিক বেকার ভাতা।
তোমার বাকপটু রাজনীতি, সরকারের কেনা মাথা!

আমার ঝাপসা কাচের দৃষ্টি, শব সমাধিতে বন্দি।
তোমার স্পষ্ট দেখা রাজ‍্যে ধনী গরীবের সন্ধি!

(৫)
আমার ভুল ব‍্যকরণ প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়।
মনুষ্যত্বের ভুল সমাসে  আমার আজো ভয় হয়।

আমার নেশায় পাগল মন, চিলিম ভরা ক্ষোভ।
তোমার মৃত‍্যুঞ্জয়ী ক্ষণ,অপার্থিব অযাচিত লোভ।

আমার ভিজিয়ে দেওয়া ভাগ‍্য, বিধাতার পরিহাস।
তোমার শীতল সুন্দর ছায়া, মুক্তির উষ্ণ আভাস।

আমার না পাওয়া হিসেব, গরমিল সবটাই।
তোমার ডানাকাটা ইচ্ছে, প্রশ্নোত্তরে রং নাই।

আমার ফেলে আসা দিনগুলো, কপালের  দৃঢ় ভাঁজ।
তোমার অপেক্ষা ফুরিয়ে, নতুন ভবিষ‍্যতের সাজ।

আমার নিংড়ে নেওয়া হৃদয়, অনুভূতি অক্ষয়।
তোমার কথায় কথায় প‍্যাঁচ, প্রেমের অপচয়!

(৬)
আমার বিরোধী সরকার, আন্দোলনের প্রস্তুতি।
তোমার নীরব দু’ঠোঁট, রাজনীতিতে বিরক্তি।

আমার জীবদ্দশার ঘাটতি, মৃত মানুষের সাক্ষী।
তোমার আটকে পড়া হৃদয়, কেটেছে কেউ দাগ কি?

আমার দেশে দশের গল্প, নির্মম হলেও নিখাদ সত‍্যি।
তোমার না দেখার ভানে আশকারা পায় নেতামন্ত্রী।

যা কিছু তোমার, যা কিছু আমার, দেশ দশের হয়না ভাগ কিংবা ভাগশেষ
তুমি আমির বেমানান লড়াইয়ের পর অবশিষ্ট থাকে অধিকারের একশেষ।

আমার ঘুমভাঙা নতুন ভোর, অপেক্ষার প্রহর গোনা।
তোমার ঝুঁকে থাকা অব‍্যয়,মিথ‍্যে আশার গল্প বোনা!

আমার ভুল ব‍্যকরণ প্রজাপতির শব্দ সমন্বয়।
মনুষ্যত্বের ভুল সমাসে আমার আজো ভয় হয়!

Leave a Reply