fbpx

ভালোবাসার সংজ্ঞা নির্ধারণ

তোমার ভালোবাসার সংজ্ঞা ঠিক জানা নেই তাই তোমাকে নির্ধারণ করে তুলনা করার সাধ্যই আর পাই কোথায়
তবে আমার কাছে তুমি অস্ত যাওয়া সূর্য নও
যা আমাকে তিলে তিলে অন্ধকারে নিমজ্জিত করে এবং একটু একটু করে ঠেলে ফেলে মৃত্যুর দিকে,
বরং তুমি হলে ভোরের সেই স্নিগ্ধ আলো
যেখানে সমস্ত দুঃখ, ক্লান্তি, অবসাদ ঝেড়ে ফেলে
নতুন করে শিরদাঁড়া সোজা করা যায়।
আবার তুমি বসন্তের কোকিলও নও
যে বারবার তার গলার আওয়াজে প্রেয়সীর একাকীত্বকে তুলে ধরে
এবং আমার শত না পাওয়ার হিসেবগুলোকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়,
তুমি হলে আমার কাছে প্রচন্ড শীতের সেই তুলতুলে বস্ত্র
যার পরশ আলিঙ্গন করে নিশ্চিত ভাবে ঘুমের দেশে পাড়ি দেওয়া যায়।
আবার তুমি সেই সাময়িক সুখও নও
যা একটু একটু করে ক্রমশ উধাও হতে হতে একসময় বিলীন হয়ে যায়,
বরং তুমি হলে জমিয়ে রাখা সেই স্মৃতি
যাকে প্রতিদিন অনুশীলন করে আঁকড়ে ধরে বাঁচা যায়।

 

(ছবি -সংগৃহীত)

তুমি কখনো জ্বলন্ত সিগারেট হতে চেয়ো না
যেখানে আমি দগ্ধ হব ক্ষণে ক্ষণে
তুমি বরং আমার হাঁড়ির ফুটন্ত ভাত হয়ে থেকো,
রয়ে যাও আমার ক্ষুধার শহরে এককাঠা মুড়ির রূপক নিয়ে
কিংবা পারলে আমার জীবনের রসদ হয়ে ওঠো।
তুমি চাইলে অসম্ভব অনেক কিছুর সংজ্ঞা হতে পারতে ,
তুমি চাইলে রবীন্দ্ররচনাবলী হতে পারতে,
চাইলে গিটারের ছেঁড়া তারে সুর তুলতে পারতে,
তুমি চাইলে মালতীর সুসজ্জিত গল্পও হতে পারতে, রোদ্দুরের  সংজ্ঞা হয়ে ছুঁতে পারতে আমার সমস্ত শরীর এবং মনের গভীরতা ।

কিন্ত তুমি তো সেসব হতে চাওনি
বরং তুমি আমার বিষাক্ত বাতাসে ক্লোরোফিলের ঘ্রাণ হয়ে থেকে গিয়েছো,
এবং মিশে আছো আমার খোঁপার বাসি জুঁইয়ের গন্ধ রুপে,
আছো আমার লেপ্টে যাওয়া কাজলের গভীরতা হয়ে
এবং আমার মুছে যাওয়া লিপস্টিকের ঘনত্বের মাপে তুমি নেশাগ্ৰস্ত হয়েই আছো
ঠিক যেমন করে তোমার ছেঁড়া শার্টের বোতাম দখল করে আমার অধিকার ছড়িয়ে রেখেছি,
রয়েছি তোমার ভেজা চুলের সুবাস রুপে
কিংবা তোমার উষ্ণ চুম্বনের উজ্জ্বল মুহূর্তের সমস্ত সাক্ষী হয়ে।

(ছবি-সংগৃহীত)

এটাও পড়তে পারেন –  প্রাক্তন এর সাথে শেষের সেদিন

আমি তো পরিপূর্ণ ভাবে তোমাতেই মিশে আছি
তোমার আদরে আছি,
আবদারে আছি,
তোমার অভিমানগুলোকে কুড়িয়ে সারা শরীরে মেখেছি
তবুও তোমার সংজ্ঞা ঠিক আবিষ্কার করতে পারিনি।
আমি তো তোমার সবটা হতে চাই, আমার ভালোবাসার সংজ্ঞা নির্ধারণ করতে চাই,

তোমার দুঃখ হতে চাই
প্রচন্ড কষ্টে, তীব্র যন্ত্রণায় তোমার সমস্ত চোখের জল একনিমিষে গিলে নিতে চাই,
তোমার সারাজীবনের প্রধান অবলম্বন হতে চাই তুমি কেবল তারের জালে ঘেরা প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে আমায় ভালোবাসার সংজ্ঞাটুকু দিও,
আমার চলে যাবার মুহুর্তে মৃত্যুশয্যার কাছে বসে চোখের থেকে কয়েক ফোঁটা অশ্রু দিও
তখন না হয় ওই নোনা জলে আরো একবার
তোমার সংজ্ঞা নির্ধারণ করার চেষ্টা করবো।

Leave a Reply