সেকুলারিজ্ম

কোলকাতার নামজাদা এক কলেজের ইউনিয়ন রুমে, একটা সাদাকাপড় জাতীয় দিয়ে স্ক্রিন তৈরি করা হয়েছে। খালিদ, সৌরভ আর শালিনি তিন বন্ধু ও ওই ইউনিয়নের তিনটি প্রধান মাথা কোনো এক বিশেষ ক্যাম্পেনের তোড়জোড় করছে।

খালিদ- ভাই, সোহাম দা সেকুলারইজ্মের ওপর শর্টটা শ্যাটা হয়েছে। আজ ভালোয় ভালোয় ওটার স্ক্রিনিং হয়ে যাক। আমাদের লবি-ই জিটছে।

সৌরভ- শোন ওই মুসলিমজগতের প্রতি আবেগ দেখিয়ে যদি ভোট টানতে হয় তাহলে আমি হারতে রাজী। শালারা নিজেদের মাইনরিটি প্রমাণ করে সব ফেসিলিটি গুলোকে ব্যবহার করে পুরো বিশ্ব জয় করতে চায়! দেখবি যাদের জন্য খেতে পড়তে পারছে তাদেরই একটি কেটে খাবে। শালা কাটার জাত!

খালিদ- সৌরভ কি বলছিসটা কি? আমিও মুসলিমই। আমি রোজা রাখি না বা কথায় কথায় আল্লা কে মনে করিনা মানে এই নয় যে আমি অমার ধর্মকে রেস্পেক্ট করি না। যথেষ্ট রেস্পেক্ট করি, তুই রেস্পেক্ট করতে পারবি না তার মানে এই নয় যে ডিসরেস্পেক্ট করবি এ্যটলিস্ট আমার সামনে তো নয়ই।

সৌরভ- তোর সামনে আমার অনেকদিন আগে থেকেই এটা করা উচিত ছিল। তোরা শুধু ইয়ুজ্ করতে জানিস আর যেই ফাঁকফোকড় পাস মাথায় চড়ে বসিস। নিজেকেই দেখ না, কলেজে ঢুকলি, বাবার ফিন্যান্সিয়াল কণ্ডিশনের দোহাই দিয়ে মাইনের তে বড় একটা ছাড় লিখিয়ে নিলি আর এখন ইয়ুনিয়নের হোতা হয়ে বসেছিস!

খালিদ- এটা যদি সত্যই অমন হয়, তাতে আমার ধর্ম কেন আসছে? মাইনে তে ছাড় বিকি,সৈকত,রিয়ারা পায় না? ওরা কি মুসলিম?

সৌরভ- শোন ওদের সাথে নিজেকে তুলনা করিস না, এমনিতেই তো একটা আলাদা দেশ হাতিয়ে নিয়েছিস সেখানে গিয়ে থাক, এখানে আবার আমার বাঙলা নষ্ট করতে এসেছিস কেন? ইউ ক্রিপ্স ওয়ান্ট টু রুল দি ওয়ার্লড। শুধু নিজেদের গ্রন্থকে সঠিক প্রমাণ করতে গায়ের জোড়ে পুরো পৃথিবীটা কে একটা ইসলাম স্টেট তৈরি করতে চাস? এত সহজে হতে দেব? জ্যান্ত পুতে দেব তোদের। নিজেদের মাইনিওরিটি বলিস? শালা ভারতে তোদের সংখ্যা দিনে দিনে বাড়ছে আর আমরা শালা দয়া দেখাতে গিয়ে নিজেদের ধর্মটাকে সংকটে ফেলছি। মাই রিলিজিয়ন ইজ্ ইন ডেন্জার ফর ইউ বাস্টার্ডস!

শালীনি- শাট আপ সৌরভ! কিসব ভুলভাল আউড়াচ্ছিস? ইন্ডিয়া ইজ্ আ সেকুলার স্টেট। একটা ধর্মনিরপেক্ষ দেশ— যার মানে এ দেশের কোনো নির্দিষ্ট ধর্ম নেই, সেই দেশের আশি শতাংশ মানুষ হিন্দু আর তুই বলছিস তোর ধর্ম বিপদে! আর তুই যে হিন্দুয়ানি কে ধর্ম বলছিস, তুই কি জানিস হিন্দুয়ানি একটা ধর্ম নয় কালচার! সিন্ধুর তীরে যেই সভ্যতা গড়ে উঠেছিল, সেই সভ্য মানুষদের হিন্দু বলে। আর কমুনালিজ্মের কথা বলছিস? তোদের মধ্যে ইউনিটি টা নেই যেটা হয়তে খালিদদের ধর্মে সেখায়। এটা তোদের অপারগতা যে তোর একসাথে থাকতে পারিস না, এখানে খালিদের দোষ কোথায়? মাইনিওরিটি তোর ধর্মে নেই? তোরা আবার সেটার জন্য কোটা ফিক্স করে রাখিস। যদি বলি মুসলমানরা মাইনিওরিটি তাহলে তারা পুরো ধর্মটাকে মাইনর বলে, এমন নিজেদের মধ্যেই ভাগ করে না! সৌরভ তোর এই জেহাদটা অনৈতিক নয়? কার বিরুদ্ধে জেহাদ করছিস আমাদের খালিদের বিরুদ্ধে? যার আম্মি ইদে তোর জন্য পাঞ্জাবি বানিয়ে দেয়? নাকি তার বিরুদ্ধে যে তোর পর্ক খেতে ইচ্ছা করেছিল বলে নিজের ধর্মের এ্যগেন্স্টে গিয়ে পর্ক খেয়েছিল নাকি সেই সোবিয়ার বিরুদ্ধে যে তোর বোন নেই বলে রাখি ভাইফোঁটা দুটোই দেয়। শাহরুকের ফারস্ট ডে ফার্স্ট শো তোকে দেখতেই হবে। মাই নেম ইজ্ খান তুই ১০ বার দেখেছিস। সৌরভ কাকিমার অসুস্থতার সময় তো খালিদও ব্লাড দিয়েছিল তখন তো বলিস নি ও ইউজ্ হচ্ছে। সৌরভ আমরা এমন একটা দেশে থাকি যেখানে আমাদের পুর্ন স্বাধীনতা আছে আমরা যা ইচ্ছা খাবো যা ইচ্ছা পড়ব, যা ধর্ম ভাল লাগবে গ্রহণ করব। আমাদের দেশ আমাদের কে জোড় করে না, তুই সেটা বদলাতে চাইছিস? বদলানোর জন্য খারাপ অনেক কিছু আছে, খালিদ কে বদলি করে দেশটাকে আরেকবার ভাগ করিস না।
খালিদ বাইরে গিয়ে সিগারেট ধরালো,সৌরভ উঠে গিয়ে সিগারেটের কাউন্টার মেরে সাদাকাপড়ে প্রজেক্টারের আলো ফেলতে শুরু করল।।

Post Author: Obhishek Kar

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *