সেকুলারিজ্ম

কোলকাতার নামজাদা এক কলেজের ইউনিয়ন রুমে, একটা সাদাকাপড় জাতীয় দিয়ে স্ক্রিন তৈরি করা হয়েছে। খালিদ, সৌরভ আর শালিনি তিন বন্ধু ও ওই ইউনিয়নের তিনটি প্রধান মাথা কোনো এক বিশেষ ক্যাম্পেনের তোড়জোড় করছে। খালিদ- ভাই, সোহাম দা সেকুলারইজ্মের ওপর শর্টটা শ্যাটা হয়েছে। আজ ভালোয় ভালোয় ওটার স্ক্রিনিং হয়ে যাক। আমাদের লবি-ই জিটছে। সৌরভ- শোন ওই মুসলিমজগতের […]

কেন মেঘ আসে…(শেষ পর্ব)

দিনের আলো ফুরিয়ে গেছে অনেকক্ষণ। রক্তিম আলোয় সেজে উঠেছে ঢাকুরিয়া লেক। আমি আর অনু বসে আছি বেঞ্চিতে। আমি বসতে চাইনি যদিও, রীতিমতো জোর করেই বসিয়ে রাখা হয়েছে আমাকে। অনুর পাশেই দাঁড়িয়ে আছে মেঘ আর মেঘের পেছনে রাই। কারোর মুখ দিয়েই কোনো কথা পড়ছে না। “মেঘ কিন্ত রাইকে সত্যিই খুব ভালোবাসে”, শুরুটা অনুই করলো। আমি একবার […]

সুবর্ণলতা (চতুর্থ পর্ব)

-কিরে চুপ করে বসে আছিস ক্যান? পইরতে বসিস লাই?তুয়ার তো পরীক্ষা সামনে৷ -না আমি আর পড়ালিখা ছাড়ি দিব৷ তু ওই মুকুন্দ বাবুর কাম ছাড়ি দে৷ মা ব্যাটা মিলে খাইটবো খাবো৷ -ধুর পাগল তা কইলে চলে?তু বড় হবি কলকেতার কলেজকে পইরবি৷ তুয়ার মাস্টার কইছে তুয়ার ফল ভালো হইলে সরকার থাকি অনুদান দিবে৷ তখন তো আমার আর […]

কেন মেঘ আসে…(পর্ব-৫)

কারণে অকারণে কোলবালিশ অনেক ভিজেছে, কিন্তু মাথার বালিশ এই প্রথমবার। ‘ট্রুথ ইজ বিটার’ জানতাম, কিন্তু এত্তো তেঁতো স্বপ্নেও ভাবিনি। রাতেও মেটে চচ্চড়ি ছিল, তবুও খিদে নেই বলে নিজের ঘর আটকে বসে আছি বেশ কিছুক্ষণ। একটু আগে অবধিও কান্নাকাটি থামছিলো না, তারপর মাথায় এল ছোটবেলাতেই মা-বাবা শিখিয়েছে, ছেলেদের নাকি কাঁদতে নেই। কেন কাঁদতে নেই জানি না, […]

ফোবিয়া

ঊষা ! গোল চাকতিটার ওপর লেখাটা আবছা হয়েছে ঠিকই কিন্তু পড়া যাচ্ছে । “ কমপক্ষে দশ-বারো বছর তো হবেই ; এরা পাল্টায়না কেন ! ’’ বিড়বিড় করে বললো ইসমাইল । বাঙালির এই এক দোষ , গাঁটের কড়ি খরচা করে দশ বার সারাই করাবে অথচ নতুন কিনবে না । কালো তুলোর মতো ময়লার পুরু লেয়ার সরিয়ে […]

কেন মেঘ আসে…(পর্ব- ৪)

দিন খারাপ যায় সবাই বলে, কিন্তু রাত যে তার থেকেও খারাপ যায়- এটা কেউ বলে না কেন? ঘন্টাখানেক টিভির সামনে বসে থাকার পর কি খেয়াল হলো, নিজের ঘরে এসে ফ্যানটা ফুলস্পীডে চালিয়ে বিছানায় গা এলিয়ে দিলাম। আসলে এটাই আমার সবচেয়ে বড় গুণ, অক্লান্তভাবে ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে ল্যাদ খেয়ে যেতে পারি। হঠাৎ খেয়াল হলো, ফেসবুকটা […]

কেন মেঘ আসে…(পর্ব- ৩)

ব্রেক আপটা সত্যিই লাইফে একটা ব্রেক এনে দিয়েছে। এখনও একটা গোটা দিন কাটেনি আর মেঘ-এর জন্যে আমার অবস্থা শোচনীয়। বারবার মনে হচ্ছে অনুকে ফোন করে বলেই দিই যে ওকে ছাড়া আর থাকা যাচ্ছে না। কিন্তু সেলফ রেসপেক্টটা বজায় রাখতে হবে, রাখতেই হবে। ব্যাপারটা বন্ধুদের বলে যে কোনো লাভ হবে না তা আমি ভালো করেই জানি। […]

কেন মেঘ আসে (পর্ব- ২)

একাই বের হলাম সাইকেলটা নিয়ে। মোড়ের দোকানে বসে এককাপ চা আর দুটো বেকারি বিস্কুট, সাথে নেভিকাট ধরিয়ে জোরে একটা টান দিলাম- সত্যিই সম্পর্কের প্রথম দিকের দিনগুলো মন্দ কাটেনি। অনু ফুচকা খেতে ভালবাসতো না তবে আইসক্রিম দেখলেই মন গলে যেত নিমেষে। খেতে ভালোবাসি দুজনেই তাই দেখা করা মানেই আমাদের কাছে ছিল রোল, কাবাব থেকে শুরু করে […]

কেন মেঘ আসে… (পর্ব- ১)

ভালোভাবে খোঁজখবর নিলে দেখা যাবে- প্রতি তিনজনের মধ্যে দুজন বয়ফ্রেন্ডই তার গার্লফ্রেন্ডের বেস্টফ্রেন্ডকে সহ্য করতে পারে না। আমিও বিকল্প নই, তাই আমিও মেঘকে একদম সহ্য করতে পারি না। মেঘ হল অনুর বেষ্টফ্রেন্ড। আমার সাথে অনুর সম্পর্ক হওয়ার বছরখানেক আগে থেকে নাকি মেঘের সাথে তার এই বেস্টফ্রেন্ডশিপ হ্যাপিলি রান করছে। আমার সাথে অনুর সম্পর্কও সেরকম হ্যাপিই […]

রোজার রথ

গত দুদিনের মত সেদিনের বিকেলটাও বৃষ্টিতে ধুয়ে আরও কিছুটা স্বচ্ছ হয়ে মানুষের উৎসব মেতে উঠেছিল । ভেজা ফুটপাথে কত কত মুখ দ্রুত সরে যাচ্ছিল । গাছতলায় দাড়িয়ে ভিড় দেখছিল আফরিন । প্রতিটা মানুষ , প্রতিটা মুখ একটা নতুন গল্প বলে । মানুষের গল্প পড়তে মেতে ছিল আফরিন ; সম্বিত ফিরল মাসুদের ডাকে… – কি রে […]